মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

মণিরামপুর পৌর পরিষদের মাসিক সভার কার্যবিবরণী

মণিরামপুর পৌরসভা কার্যালয়

মণিরামপুর, যশোর।

মণিরামপুর পৌর পরিষদের নভেম্বর -২০১৮ মাসের মাসিক সভার কার্যবিবরনীঃ-

সভা নম্বরঃ

 

১১।

তারিখঃ

 

০৮/১১/২০১৮খ্রিঃ।

সময়ঃ

 

সকাল ১১:০০ ঘটিকা

স্থানঃ

 

পৌর সভা কক্ষ।

 

সভায় উপস্থিত সদস্য বৃন্দের নামের তালিকা নিন্মরুপঃ-

 

ক্রমিক নং

 

নাম

পদবী

স্বাক্ষর (অস্পষ্ট)

০১।

মোছাঃ

পারভীন আক্তার

-- কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ড নং- ১

,,

০২।

 মিসেস

শঙ্করী রানী বিশ্বাস

-- কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ড নং- ২

,,

০৩।

মিসেস 

গীতা রানী কুন্ডু

-- কাউন্সিলর, সংরক্ষিত ওয়ার্ড নং- ৩

,,

০৪।

জনাব 

মোহাম্মদ আজিম

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ১

,,

০৫।

জনাব 

গোপাল চন্দ্র মলিস্নক

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ২

,,

০৬।

জনাব 

গৌর কুমার ঘোষ

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ৩

,,

০৭।

জনাব 

মোঃ আব্দুর রহমান

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ৪

,,

০৮।

জনাব  

মোঃ মফিজুর রহমান                       

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ৫

,,

০৯।

জনাব  

মোঃ জামসেদ আলী                      

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ৬

,,

১০।

জনাব 

মোঃ কামরুজ্জামান 

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ৭

,,

১১।

জনাব

মোঃ বাবুল রহমান

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ৮

,,

১২।

জনাব

মোঃ বসু মোল্লা

-- কাউন্সিলর, ওয়ার্ড নং- ৯

,,

               

         

সভায় সভাপতিত্ব করেন জনাব কাজী মাহমুদুল হাসান, মেয়র, মণিরামপুর পৌরসভা। তিনি সভার শুরুতে মহান করুনাময় আল্লাহ তালার নিকট শুকরিয়া আদায় করেন এবং উপস্থিত সম্মানিত সকল কাউন্সিলরদিগকে আমত্মরিক ধন্যবাদ ও মোবারকবাদ জানিয়ে সভার কাজ শুরু করেন।

আলোচ্য সূচী ০১ঃ  পূর্ববর্তী সভার কার্যবিবরনী পঠন ও অনুমোদন প্রসংগে     

           সভার শুরুতে গত সভার কার্যবিবরনী পাঠ করা হয়। কার্যবিবরনীতে কারও কোন সংশোধন, সংযোজন এবং কোন প্রকার আপত্তি না থাকায় দৃঢ়ীকরণ করা হয়।

 

আলোচ্য সূচী ০২ঃ মণিরামপুর পেŠরসভা-কে ’’খ’’ শ্রেনীর পৌরসভা হতে ’’ক’’ শ্রেনীর পৌরসভায় উন্নীতকরণ প্রসংগে

          সভায় সভাপতি বলেন মণিরামপুর পৌরসভার রাজস্ব আয়ের নথী পত্র পর্যালোচনা করে দেখা যায় অনেক আগেই ’’খ’’ শ্রেনী থেকে ’’ক’’ শ্রেনীর পৌরসভায় উন্নীত হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে। সভাপতি সাহেব উপস্থিত সকল কাউন্সিলরগনকে অত্র পৌরসভার শ্রেনী উন্নীতকরণের বিষয়ে আলোচনা ও মতামত প্রদানের জন্য আহবান জানান। সভাপতি সাহেবের আহবানে কাউন্সিলর জনাব মোঃ কামরুজ্জামান, শ্রেনী উন্নীতকরণের জন্য সভায় প্রস্তাব করেন। জনাব কামরুজ্জামানের প্রসত্মাবে একমত পোষন করে শ্রেনী উন্নীতকণের বিষয়ে উপস্থিত সকল কাউন্সিলরগন বিসত্মারিত আলোচনা করে মণিরামপুর পৌরসভাকে ’’খ’’ শ্রেনী হতে ’’ক’’ শ্রেনীর পৌরসভায় উন্নীতকরণ করার পক্ষে প্রসত্মাব/ মতামত দেন ।                

        সিদ্ধামত্মঃ  সভায় বিস্তারিত আলোচনান্তে মণিরামপুর পৌরসভাকে ’’খ’’ শ্রেনী থেকে ’’ক’’ শ্রেনীর পৌরসভায় উন্নীতকরণ করা হবে মর্মে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়। শ্রেনী উন্নীতকরণের প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র সহ নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ স্থানীয় সরকার বিভাগে পত্র প্রেরন করার জন্য মেয়র, মণিরামপুর  পৌরসভাকে অনুরোধ করা হয়।

 

 

 

আলোচ্য সূচীঃ (০৩) উন্নয়ন মুলক কাজ প্রসংগে     

          সভায় সভাপতি সহকারী প্রকৌশলী-কে পৌরসভায় প্রাপ্ত বরাদ্দ ও উন্নয়ন মূলক কাজের বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে জানাতে বলেন। সভাপতির অনুমতিক্রমে সহকারী প্রকৌশলী সভায় জানান ২০১৭-২০১৮অর্থ বছরের প্রথম ও দ্বিতীয় কিস্তির উন্নয়ন থোক বরাদ্দের প্রাপ্ত ৬০লক্ষ টাকার ১৩টি প্রকল্পের কাজ ইতিমধ্যে সমাপ্ত হয়েছে। স্থানীয় সরকার বিভাগের পৌর-২শাখার স্মারক নং-৪৬.০০.০০০০.০৬৪.১৪.০৫৭.১৫-৬৯৭ তারিখ: ১৭/০৫/২০১৮খ্রি: মোতাবেক ৩০(ত্রিশ) লক্ষ টাকা পৌর ভবন সম্প্রসারনের জন্য বিশেষ বরাদ্দ পাওয়া যায়। ভবন সম্প্রসারনের কাজ চলমান। ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের এডিপির ৩৫লক্ষ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গিয়েছে । সভাপতি সাহেব উপস্থিত সকল কাউন্সিলরগনকে সহকারী প্রকৌশলীর  বক্তব্য ও উন্নয়ন কাজ নিয়ে আলোচনা ও প্রাপ্ত ৩৫লক্ষ টাকার প্রকল্প গ্রহন করার নিমিত্তে বিভাজন করার জন্য আহবান জানান। সভাপতি সাহেবের আহবানে উপস্থিত সকল কাউন্সিলর বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করে ২০১৭-২০১৮অর্থবছরের পৌর ভবন সম্প্রসারন কাজ দ্রুত শেষ করা ও প্রাপ্ত ৩৫লক্ষ টাকার কাজ প্রতি ওয়ার্ডে ২লক্ষ টাকার অর্থাৎ ৯টি ওয়ার্ডের সাধারন ওয়ার্ডে মহিলা পুরুষ কাউন্সিলর গন ১৮লক্ষ টাকার প্রকল্প দাখিল করবেন ম©র্ম প্রস্তাব/ মতামত দেন ।       

                                             

        সিদ্ধান্তঃ  সভায় বিস্তারিত আলোচনামেত্ম ২০১৭-২০১৮অর্থবছরের পৌর ভবন সম্প্রসারন কাজ দ্রুত শেষ করা ও এডিপির প্রাপ্ত ৩৫লক্ষ টাকার কাজ প্রতি ওয়ার্ডে ২লক্ষ টাকার অর্থাৎ ৯*২=১৮ লক্ষ টাকার প্রকল্প ওয়ার্ডের্র মহিলা ও পুরুষ কাউন্সিলরগন দাখিল করবেন মর্মে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়। এবিষয়ে সহকারী প্রকৌশলীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দায়িত্ব দেয়া হয়। 

আলোচ্য সূচী ০৪ঃ মণিরামপুর  পৌরসভায় তিনজন বাজার সেবক নিয়োগ করা সংক্রান্তঃ

          সভায় সভাপতি বলেন ২৩/০৭/২০১৮তারিখের পৌর পরিষদের সিদ্ধান্তের আলোকে তিন জন বাজার সেবক নিয়োগ দেয়া। তিনজন বাজার সেবকের মধ্যে   জনাব মিহির কুমার ঘোষ, পিতাঃ চিত্যরঞ্জন ঘোষ বাজার সেবকের কাজ করবেন না মর্মে জানিয়েছেন। সভাপতি জনাব মিহির কুমার ঘোষের বিষয়ে আলোচনা ও মতামত দেয়ার জন্য আহবান জানান।  উপস্থিত সকল কাউন্সিলর বিষয়টি নিয়ে বিসত্মারিত আলোচনায়ামেত্ম জনাব মিহির কুমার ঘোষের স্থলে জনাব দিপু বিশ্বাস, পিতা: প্রতাপ কুমার বিশ্বাস, গ্রাম: তাহেরপুর, মণিরামপুর -কে নিয়োগ করার জন্য সকল কাউন্সিলরগন প্রসত্মাব করেন।            

       

        সিদ্ধান্তঃ  সভায় বিস্তারিত আলোচনামেত্মজনাব মিহির কুমার ঘোষের স্থলে জনাব দিপু বিশ্বাস, পিতা: প্রতাপ কুমার বিশ্বাস, গ্রাম: তাহেরপুর, মণিরামপুর -কে বাজার সেবক হিসাবে নিয়োগ দেয়া হবে মর্মে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।  নিয়োগ প্রদান ও বেতন নির্ধারন করার জন্য মেয়র, পৌরসভাকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

 

আলোচ্য সূচীঃ (৫) মণিরামপুর পৌরসভার উন্নয়ন মুলক কাজ আরএফকিউ-এর মাধ্যমে করণ প্রসংগে।             

          সভায় সভাপতি বলেন মণিরামপুর পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে জনগুত্বপূর্ন উন্নয়ন কাজ দ্রুত করা দরকার। তার মধ্যে জনগুরুত্বপুর্ন নওয়াপাড়া রোড থেকে স্বরুপদ্হ রোড়, আকরাম মোড় হতে দক্ষিন দিকের দুই রাসত্মার সংযোগ পশ্চিম বিল ও জুড়ানপুর হতে রশিদ মিস্ত্রির বাড়ীর সামনে হয়ে বিল রাজগঞ্জ রাস্তার সংযোগ পর্যন্ত রাস্তার মাটির কাজ করা জরুরী।  সভাপতি সাহেব উপস্থিত সকল কাউন্সিলরগনকে  উল্লেখিত তিনটি মাটির উন্নয়ন কাজ কিভাবে কোন উৎসের অর্থ দিয়ে করা হবে তা নিয়ে আলোচনা ও মতামত দেয়ার জন্য আহবান জানান। সভাপতি সাহেবের আহবানে উপস্থিত সকল কাউন্সিলর উল্লেখিত তিন টি প্রকল্পের কাজ করা নিয়ে বিসত্মারিত আলোচনা করে জরুরী জনগুররত্বপূর্ন কাজ এডিপির অর্থে জরুরী ভাবে স্বল্প সময়ে আরএফকিউ-এর মাধ্যমে দ্রুত করার জন্য মতামত দেন ।      

 

        সিদ্ধমত্মাঃ  সভায় বিসত্মারিত আলোচনান্তে মণিরামপুর পৌরসভার জনগুরুত্বপুর্ন নওয়াপাড়া রোড থেকে স্বরুপদাহ রোড়, আকরাম মোড় হতে দক্ষিন দিকের দুই রাসত্মার সংযোগ পশ্চিম বিল ও জুড়ানপুর হতে রশিদ মিস্ত্রির বাড়ীর সামনে হয়ে বিল রাজগঞ্জ রাসত্মার সংযোগ পর্যন্ত রাস্তার মাটির কাজ এডিপির অর্থে আরএফকিউ-এর মাধ্যমে দ্রুত করা হবে মর্মে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়। এবিষয়ে সহকারী প্রকৌশলীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দায়িত্ব দেয়া হয়। 

 

 

 

 

আলোচ্য সূচী ০৬ঃ জন্ম -মৃত্যু নিবন্ধন সংক্রামত্ম ঃ

সভায় সভাপতি বলেন পৌরসভা এলাকায় ১০০% জন্ম নিবন্ধন হয়েছে। জন্ম সনদ বিতরন কাজ এখনও ১০০% হয়নি। জন্ম নিবন্ধনের পাশাপাশি মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রম জোরদার করতে হবে। জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন সম্পর্কে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে জনগনকে সচেতন করতে হবে। জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন করাতে হবে। সর্বশেষ গেজেট অনুসারে নির্ধারিত ফি সম্পর্কে জনগনকে সচেতন করে তুলতে হবে।  সভাপতি সাহেবের বক্তব্যে উপস্থিত সকল কাউন্সিলর একমত পোষন করেন এবং নিজ নিজ ওয়ার্ডের জনগন কে জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন সম্পর্কে সচেতন করার জন্য একমত পোষন করেন।

সিদ্ধামত্ম ঃ  সভায় বিস্তারিত আলোচনান্তে জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন সম্পর্কে জনগনকে সচেতন করা হবে মর্মে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলরকে  দায়িত্ব দেয়া হয়।

আলোচ্য সূচী (০৭)ঃ বিল ভাউচার অনুমোদন সংক্রামত্ম ঃ

সভায় দায়িত্বপ্রাপ্ত হিসাব রক্ষক, মণিরামপুর পৌরসভা কার্যালয়ের ১৪/১০/২০১৮ইং হতে ০৭/১১/২০১৮ইং পর্যমত্ম ভাউচার নং ৯১ থেকে ১৩৭ পর্যন্ত হিসাব নং এসটিডি- ২৭/১০৩-এর ৫,৭০,১৭৫/- (পাঁচ লক্ষ সত্তর হাজার একশত পচাত্তর), হিসাব নং এসটিডি- ২৮/১২৮-এর ৩,৫৬,৮৪১/- (তিন লক্ষ ছাপ্পান্ন হাজার আটশত একচলিস্নশ), হিসাব নং এসটিডি-৪৯-এর ৪৭,০০০/- (সাত চল্লিশ হাজার), হিসাব নং চলতি-১২৫০/৩৩০০২৩৭৪-এর ৫,৬৮,১৮০/- (পাঁচ লক্ষ আটষট্রি হাজার একশত আশি) টাকা সর্বমোট ১৫,৪২,১৯৬/- (পনের লক্ষ বিয়ালিস্নশ হাজার একশত ছিয়ানববই) বিল ভাউচার সভায় উপস্থাপন করেন। সভাপতি সাহেব উপস্থাপিত সকল বিল ভাউচারের উপর আলোচনা, যাচাই ও দেখার জন্য উপস্থিত সকল কাউন্সিলরকে আহবান জানান। উপস্থিত সকল কাউন্সিলর উপস্থাপিত সকল বিল ভাউচার পরীক্ষা নিরীক্ষা ও যাচাই করে সঠিক আছে মর্মে মতামত দেন। 

সিদ্ধামত্মঃ  সভায় বিস্তারিত আলোচনান্তে ১৪/১০/২০১৮ইং হতে ০৭/১১/২০১৮ইং পর্যন্ত ভাউচার নং ৯১ থেকে ১৩৭ পর্যমত্ম হিসাব নং এসটিডি- ২৭/১০৩-এর ৫,৭০,১৭৫/- (পাঁচ লক্ষ সত্তর হাজার একশত পচাত্তর), হিসাব নং এসটিডি- ২৮/১২৮-এর ৩,৫৬,৮৪১/- (তিন লক্ষ ছাপ্পান্ন হাজার আটশত একচল্লিশ), হিসাব নং এসটিডি-৪৯-এর ৪৭,০০০/- (সাত চলিস্নশ হাজার), হিসাব নং চলতি-১২৫০/৩৩০০২৩৭৪-এর ৫,৬৮,১৮০/- (পাঁচ লক্ষ আটষট্রি হাজার একশত আশি) টাকা সর্বমোট ১৫,৪২,১৯৬/- (পনের লক্ষ বিয়াল্লিশ হাজার একশত ছিয়ানববই) মাত্র টাকার বিল ভাউচার সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়।

অদ্যকার সভায় আর কোন আলোচনা না থাকায় সভাপতি উপস্থিত সকল কাউন্সিলরগন-কে আন্তরিক ধন্যবাদ ও মোবারকবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।    

                                                                                                           

(কাজী মাহমুদুল হাসান)

সভার সভাপতি

মেয়র

মণিরামপুর পৌরসভা, যশোর।

স্মারকনং-মণি/পৌর/১-৩১(অংশ-৩)/২০১৮-৫৩২/১(১৮)                                  তারিখঃ ০৮/১১/২০১৮খ্রিঃ।

অনুলিপি সদয় অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রেরন করা হলোঃ-                     

১। সিনিয়র সচিব, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ওসমবায় মন্ত্রনালয়, স্থানীয় সরকার বিভাগ,বাংলাদেশ সচিবালয়, ঢাকা।

     দৃষ্টি আকর্ষনেঃ উপ-সচিব, পৌর-২ অধিশাখা।

২। জেলা প্রশাসক, যশোর। 

৩। পুলিশ সুপার, যশোর।

৪। উপ পরিচালক (উপ সচিব) স্থানীয় সরকার, যশোর।

৫। জনাব,................................................................................................................যশোর।       

৬। অফিস নথি।                          

                                                                                            (কাজী মাহমুদুল হাসান)

মেয়র

মণিরামপুর পৌরসভা, যশোর।

 

 

ছবি


সংযুক্তি

Bazad.14.pdf Bazad.14.pdf


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter